প্রোডাক্ট/সার্ভিস সেলের জন্য মার্কেটিং, প্রাইসিং এবং কম্পিটিটর রিসার্স সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ

প্রোডাক্ট/সার্ভিস সেলের জন্য মার্কেটিং, প্রাইসিং এবং কম্পিটিটর রিসার্স সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ

কোনভাবেই সেলস জেনারেট করতে পারছি না।  আমাদের ভুল হচ্ছে না তো কোথাও? হাজার হাজার টাকা ইনভেস্ট করছেন? ফেসবুক অ্যাড দিচ্ছেন, মার্কেটিং করছেন, বিভিন্ন লোকেশনে  অ্যাড দিচ্ছেন, বিভিন্ন টারগেটিং করে অ্যাড দিচ্ছেন, বিভিন্ন অ্যাড অবজেক্টিভে অ্যাড দিচ্ছেন কাস্টমার কুয়েরিও পাচ্ছেন তারপর ও সেল হচ্ছে না!! আসলেই অবাক করা ব্যাপার তাই না?? এবং হতাশাজনক অবশ্যই। আচ্ছা সমস্যা মার্কেটিংয়ে না হয়ে সমস্যা অন্য জায়গায় না তো? আমার তো মনে হয় অন্য জায়গায়। তাহলে কি আমাদের কম্পিটিটর রিসার্স এ ভুল হচ্ছে? হয়তোবা তাই। তাহলে আমাদের এই সমস্যা থেকে উত্তরণের উপায় কি।

চলুন তাহলে এই তুচ্ছ জ্ঞানে সংক্ষিপ্ত আকারে কোন একটা সমাধান বের করার চেষ্টা করি। আমি আমার চোখের সামনে অনেক অনেক উদ্যোক্তাকে দেউলিয়া হয়ে যেতে দেখেছি। অনেক স্টার্টাপ এজেন্সিকে তাদের ব্যবসা গুটিয়ে নিতে দেখেছি। কারণ তারা কোনভাবেই নিজেদের খরচ পুষিয়ে লাভের মুখ দেখতে পাচ্ছিল না। 

তাহলে আমরা এসব সমস্যা কিভাবে কাটিয়ে ব্যাবসায় পুরাদমে গতি ফিরিয়ে আনতে পারি?

প্রথমতঃ আমাদের একজন উদ্যোক্তা হিসাবে প্রয়োজন ইনভেস্টমেন্ট এর মাইন্ডসেট বদলানো। এবং যেকোন ব্যবসার শুরু থেকেই প্রফিট এর আশা করলে আমাদের ভুল হবে। যেকোন কোন ব্যবসার ইনভেস্টমেন্ট অনেক ধরনের হতে পারে, হতে পারে সেটা সময়,মেধা,অর্থ,প্রাতিষ্ঠানিক ব্যয় ইত্যাদি।

দ্বিতীয়তঃ আমরা সবথেকে বেশী যে ভুলটা করে থাকি তা হলো, আমরা প্রফিট এর দিকে তাকিয়ে থেকে আমাদের হেড টু হেড কম্পিটিটর দিকে তাকানোর কথাই ভুলে যাই। ভুলে যাই আমাদের কম্পিটিটররা ঠিক একই ধরনের সার্ভিস দিতে গিয়ে কি কি ধরনের পদক্ষেপ গ্রহন করছে।

আমরা কোনভাবে বোঝার চেষ্ঠাই করিনা আসলে সব ধরনের লোকসান,লোকসান নয়। অনেক ধরনের লোকসান এক প্রকার ইনভেস্টমেন্ট এর থেকেও দীর্ঘমেয়াদে বেশী কাজে দেয়।

কম্পিটিটর রিসার্স কেন এত জরুরী?

কম্পিটিটর রিসার্স আপনাকে বুঝতে সাহায্য করে যে গ্রাহকরা কেন আপনার বা আপনার প্রতিযোগীদের কাছ থেকে কোন সার্ভিস নিতে আগ্রহী হয় এবং আপনার প্রতিযোগিরা কীভাবে তাদের পণ্য/সেবাগুলো বিক্রয় করছে। সময়ের সাথে সাথে, এটি আপনাকে আপনার নিজের মার্কেটিং স্ট্রাটেজিকে আরো উন্নত করতে সহায়তা করে।

আপনার মার্কেটিং গ্যাপগুলো  চিহ্নিত করার জন্য হলেও আপনার কম্পিটিটর রিসার্স করা উচিৎ। আপনি যখন কম্পিটিটর রিসার্স করেন, আপনি আপনার প্রতিযোগীদের শক্তি এবং দুর্বলতা বিশ্লেষণ করছেন এবং তা উপলব্ধি করছেন। আপনি সাম্প্রতিক ডাটা বিশ্লেষন করলে পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেখতে পাবেন যে, আপনার সম্ভাব্য গ্রাহকের বিশাল একটি অংশ রয়েছে যারা কোন না কোনভাবে আপনার কম্পিটিটরদের কাছে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার শিকার হচ্ছে। এটি আপনার গ্রাহকদের কাছে পৌঁছানোর জন্য একটি অনন্য অবস্থানে রাখতে পারে।

 কম্পিটিটর রিসার্স আপনাকে আরো যেভাবে সাহায্য করতে পারে

  • নিজের সার্ভিস সম্পর্কে আত্মতৃপ্তি এড়াতে সহায়তা করে 
  • আপনার ব্র্যান্ড সতর্কতা তৈরিতে সহায়তা করে
  • আত্ননির্ভরশীলতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে
  • ভিন্নতার দিকে ইতিবাচক উৎসাহ দেয়
  • এটি আপনাকে নতুন ট্রেন্ডগুলি সনাক্ত করতে এবং সুবিধা নিতে সহায়তা করে
  • কম্পিটিশন আপনার অগ্রগতির অপ্রত্যাশিত অংশীদার হতে পারে
  • এটি আপনাকে পারস্পরিক সহায়তা ও শিক্ষার দিকে উৎসাহিত করে।

 

কম্পিটিটর রিসার্স এবং প্রাইসিং কেন এত জরুরী, সেটা বোঝাতে এখন একটা উদারহন তুলে ধরা যাকঃ

মনে করুন আপনি কোন একটি ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সির স্বত্তাধীকারি। আপনার কোন একটি ডিজিটাল সার্ভিস অথবা ডিজিটাল প্রোডাক্ট ব্যবহার উপযোগী করে গড়ে তুললে আপনার খরচ পড়েছে ১০ হাজার টাকা। সেক্ষেত্রে ঐ সার্ভিসটি কারো কাছে যদি আপনি সেল করতে চান, আপনার অবশ্যই ইনটেশন থাকবে প্রফিট বের করা আর এটাই স্বাভাবিক।

কিন্তু আপনি যখন একজন ক্রেতার রোল প্লে করবেন তখন যদি আপনি ঐ একই সার্ভিস/প্রোডাক্ট  ৬ হাজার টাকায় কারো কাছ থেকে পেয়ে যান সেক্ষেত্রে তো আপনি ১০ হাজার টাকা ব্যয় করতে যাবেন না। তাই আমাদের নতুন উদ্যোক্তা হিসাবে একটা কাস্টমার বেইজ তৈরি করার জন্য এবং ট্রাস্ট বিল্ড করার জন্য হলেও আমাদের কম্পিটিটরদের তুলনায় ভালো মানের সার্ভিস কম্পিটিটরদের দামেই দিতে হবে। তা নাহলে অলরেডি মার্কেটে যার একটা সুনাম আছে সে কেনো আমার মত একটা নতুন এজেন্সির কাছ থেকে সার্ভিস নিতে যাবে। এক্ষেত্রে আমাদের লস হলেও আসলে এই লসই হবে আমাদের সবথেকে উৎকৃষ্ঠমানের ইনভেস্টমেন্ট।

তাই আমাদের উচিৎ হবে শুধুমাত্র মার্কেটিং এর দিকে না তাকিয়ে থেকে, সার্ভিসকে সহজ এবং  গ্রাহকদের সকল দিক বিবেচনা করে ডিজাইন করা। আমাদের উদ্ভাবন করতে হবে কিভাবে আমরা একই ধরনের প্রোডাক্ট/সার্ভিস প্রতিযোগীদের থেকে মান ভাল রেখে তুলনামুলক কম দামে সরবরাহ করতে পারি।

আর সবথেকে বড় কথা হল, অনলাইনে আমরা শুধু দেখেই প্রোডাক্ট কিনি, ছুঁয়ে বা ডুরাবিলিটি দেখে না। তাই কাস্টমারদের বিশ্বাস অর্জনও সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ। কারন আপনার প্রোডক্ট বা প্রতিষ্ঠানের উপর যখন কোন গ্রাহকের বিশ্বাস অর্জন হবে, তখন সে আপনার হয়ে অ্যাডভার্টাইজিং এর কাজ করে দিবে। একই ধরনের প্রোডাক্ট বা সার্ভিস এর জন্য অবশ্যই সে তার পরিচিতজনদের রিকোমেন্ড করবে।

পরিশেষে,

ডিজিটাল মার্কেটিং এভাবেই দুর্দান্ত গতিতে এগিয়ে চলেছে। আপনাকে এই গতির সাথে মানিয়ে নেবার সক্ষমতা অর্জন করতে হবে। যুগের পরিবর্তনের সাথে সাথে কাস্টমারদের সাথে যোগাযোগের ধরন ও প্রকৃতিতে ক্রমাগত পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে কম খরচে এবং পরিমাপযোগ্য  উপায়ে এমন এক বিশাল সংখ্যক দর্শকের কাছে পৌঁছে যেতে পারেন যারা আপনার বিজনেসের জন্য আদর্শ। আপনার টার্গেট কাস্টমার গ্রুপের সম্পর্কে জানুন, পরিকল্পনা করুন, ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে মার্কেটিং করুন আর বিজনেস বাড়ান।

আর আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে হাতেখড়ি হয়ে থাকেন তার জন্য তো আমরা আছি। এই ধরণের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে YappoBD থেকে নিতে পারেন ফ্রি কনসাল্টেশন। আমরা আমাদের ক্লাইন্টদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আলোচনা করে তাদের পরামর্শ দেওয়ার চেষ্টা করি।

আপনিও পারেন আপনার প্রশ্নটি করতে। আমরা চেষ্টা করবো আপনাকে সঠিক দিকনির্দেশনা দিতে। প্রশ্ন করতে আপনার মোবাইল নাম্বার ও পেজ লিঙ্ক সহ প্রশ্ন টি সুন্দর করে মেসেজ করতে পারেন আমাদের ফেসবুক পেজে

Facebook Comment