You are currently viewing ফাস্ট লোডিং ওয়েবসাইট কেনো ব্যাবহার করবেন ও লাইট স্পিড ওয়েবসাইট এর গুরুত্ব

ফাস্ট লোডিং ওয়েবসাইট কেনো ব্যাবহার করবেন ও লাইট স্পিড ওয়েবসাইট এর গুরুত্ব

আপনি নিজের পছন্দ অনুযায়ী একটা ওয়েবসাইট তৈরি করলেন, তারপর এটি কে SEO অপ্টিমাইজ  করলেন, তাতে সুন্দর সুন্দর কন্টেন্ট, ছবি, এনিমেশন যুক্ত করলেন কিন্তু তাতেও আপনার ওয়েবসাইট টি গুগলের সার্চ ইঞ্জিন এ র‍্যাঙ্ক হচ্ছে না? এর অন্যতম একটি কারণ হলো ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড ফাস্ট না হওয়া এই পুরো আর্টিকেল টি তে থাকছে আপনি কেনো ফাস্ট লোডিং ওয়েবসাইট ব্যবহার করবেন, ওয়ার্ডপ্রেস  ওয়েবসাইট এর  স্পিড অপ্টিমাইজড, ফাস্ট লোডিং ওয়েবসাইট এর গুরুত্বচলুন আর্টিকেল  টি পড়ে আসা যাক

একটি ওয়েবসাইট কে গুগল তখনই র‍্যাঙ্ক করায় যখন এটি সব দিক থেকে ইউজার ফ্রেন্ডলি হয় আপনি একটি ওয়েবসাইট কে হাই  কোয়ালিটির কন্টেন্ট দ্বারা সাজালেন কিন্তু সেটিও র‍্যাংক করবেনা স্লো স্পিড এর কারণেআপনার ওয়েব সাইট এর কিওয়ার্ড লিখে একজন সার্চ ইঞ্জিন সার্চ করলো, কিন্তু কিওয়ার্ড টি তে ক্লিক করার পর ওয়েবসাইট স্লো হওয়ার জন্য ইউজার টি বিরক্তি প্রকাশ করলো এবং ওয়েবসাইট থেকে বেড়িয়ে গেলোতাহলে আপনার ওয়েবসাইট টি ইউজার এর জন্য ফ্রেন্ডলি না এই সমস্ত বিষয় গুগল পর্যবেক্ষণ করে এবং আপনার ওয়েবসাইট টির র‍্যাংক কমিয়ে দেয় গুগলের সার্চ ইঞ্জিন ভালো র‍্যাংকিং পেতে চাইলে অবশ্যই পেইজ স্পিড ফাস্ট হওয়াটা জরুরিতাই ফাস্ট লোডিং ওয়েবসাইট এর একটি বড় সুফল হলো এতে আপনার ওয়েবসাইট টি গুগল র‍্যাংক করতে সাহায্য করবেইউজাররা ওয়েবসাইট ব্যাবহার করে কমফোর্টেবল ফিল করবে এবং তাদের সময় বাঁচবেফাস্ট  লোডিং ওয়েবসাইট ইউজার এর পাশাপাশি গুগলের পছন্দফলে আপনি গুগল থেকে অর্গানিক ট্রাফিক ভিজিটরস পাবেন

যদি আপনার ওয়েবসাইট টি . সেকেন্ডের মধ্যে লোড নিতে সক্ষম হয় তবে এটি ওয়েবের প্রায় ৫০% সাইট এর চেয়ে দ্রুতযদি আপনার সাইট টি . সেকেন্ডের ভেতর লোড নিতে সক্ষম হয় তাহলে এটি প্রায় ৭৫% সাইট এর থেকে দ্রুতআর যদি আপনার ওয়েবসাইট টি . সেকেন্ডের ভেতরে লোড নেয় তাহলে আপনার ওয়েবসাইট টি ৯৪% ওয়েবসাইট এর থেকে দ্রুত। এবং ধরে নেওয়া যেতে পারে আপনার ওয়েবসাইট টি সুপার ফাস্টযদি আপনার সাইট টি এর থেকেও ধীর গতির হয়ে থাকে তাহলে ওয়ার্ড প্রেস অপ্টিমাইজড করা জরুরিআপনি বিভিন্ন ধরনের পেইড টুলস অথবা ফ্রি টুলস দ্বারা আপনার ওয়েবসাইটের স্পিড যাচাই করে নিতে পারেনআপনার সুবিধার্তে নিচে কিছু ফ্রি টুলস দিয়ে দেওয়া হলো যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার ওয়েবসাইট এর বর্তমান লোডিং টাইম জেনে নিতে পারবেন। 

  • Google page speed 
  • GTmetrix
  • Web Page Test
  • Pingdom

বর্তমানে সবারই উচিৎ কিভাবে লোডিং স্পিড বাড়ানো যায় সে সম্পর্কে জানানিচে লোডিং স্পিড কিভাবে বাড়ানো যায় সে সম্পর্কে আলোচনা করা হল

ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ফাস্ট করার উপায়ঃ

বর্তমান সময়ের তুমুল জনপ্রিয় কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এর একটি হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেসবর্তমানে প্রায় ৮০% ওয়েবসাইট তৈরি হয়েছে ওয়ার্ডপ্রেস দ্বারাকিন্তু আমাদের নিজেদের কিছু ভুলের জন্যই মুলত ওয়েবসাইটের স্পিড স্লো হয়ে যায়যার ফলে বাউন্স রেট, কনভারসন, জনপ্রিয়তা কমতে থাকে। তাই আপনার ওয়েব সাইটটি ফাস্ট লোডিং ও সুন্দর ভাবে অপটিমাইজ করতে যোগাযোগ করুন YappoBd.Com এর সাথে। 

এখানে ওয়েবসাইট স্লো হয়ে যাওয়ার কিছু মেইন পয়েন্ট তুলে ধরা হলো, এবং এর থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য কিছু টিপস নিচে আলোচনা করা হলো। 

হোস্টিংঃ

ওয়েবসাইট স্লো হওয়া নিয়ে কথা বলতে গেলেই প্রথমে মাথায় আসে হোস্টিং এর বিষয়টিআপনি যদি ভালো হোস্টিং কোম্পানি থেকে আপনার ওয়েবসাইট টি হোস্ট না করান তাহলে আপনার ওয়েবসাইট টি দিন দিন ডাউন হয়ে যাবেহোস্টিং প্যাকেজ কেনার আগে অবশ্যই আপনার উচিৎ উক্ত কোম্পানি সম্পর্কে যাচাই করে নেওয়াবিদেশি হোস্টিং কোম্পানির পাশাপাশি দেশেও অনেক ভালো মানের হোস্টিং কোম্পানি রয়েছেআপনি কম টাকায় যদি খারাপ মানের হোস্টিং সার্ভার দ্বারা নিজের ওয়েবসাইট টি হোস্ট করান তাহলে আপনার পুরো পরিশ্রম টাই বিফলে যাবেশুধুমাত্র এই একটি কারণেই আপনার ওয়েবসাইট টি ৭০% স্লো হয়ে যেতে পারেতাই পরামর্শ হলো একটি ভালো হোস্টিং সার্ভার থেকে আপনার ওয়েবসাইট টি হোস্ট করানভালো হোস্টিং সার্ভার এর মধ্যে অন্যতম একটি সার্ভার হলো cloud hosting service. এটি আপনার ওয়েবসাইটের স্পিড কে দ্রুত করবে। cloud hosting service দ্বারা আপনার ওয়েবসাইট টি হোস্টিং করলে খরচ টা একটু বেশি হবে কিন্তু আপনি খুব ভালো স্পিড পাবেনআরও কিছু ভালো মানের হোস্টিং কোম্পানি হচ্ছেঃ  www.inmotionhosting.com, www.cloudways.com, www.a2hosting.com, www.bluehost.com 

থিমঃ 

ওয়েবসাইটের স্পিড এর ক্ষেত্রে থিম একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়আপনি যদি থিমের স্পিড এর চেয়ে এসথেটিক এর উপর বেশি নজর দেন তাহলে এটি হবে আপনার সব থেকে বড় ভুলকারণ এর ফলে থিমগুলো ভারি হয়ে যায়তাই আপনাকে থিম নির্বাচনে বুদ্ধির পরিচয় দিতে হবেএমন থিম নির্বাচন করুন যেটা একই সাথে দেখতে স্টাইলিশ, হাল্কা দ্রুততার সাথে কাজ করেবর্তমানে বহু ফ্রী এবং পেইড টুলস রয়েছেপেইড থিম এর ভেতরে avada খুব ভালো সার্ভিস দেয়ফ্রি থিম গুলো যদি ব্যাবহার করতে চান তাহলে আগে রিভিউ দেখে নিবেনকিছু ফ্রি থিম হলোঃ 

  1. Astra pro
  2. OceanWP
  3. Generatepress
  4. Genesis framework 
  5. Schema

ইমেজ অপ্টিমাইজডঃ

বড় সাইজের ইমেজের জন্যও স্পিড কমে যায়তাই আপনার উচিত হবে দেখতে সুন্দর কিন্তু ছোট সাইজের ইমেজ ব্যবহার করা২ ভাবে আপনি ইমেজ সাইজ ছোট করতে পারবেন

  • আপনার সাইটে নির্ধারিত প্লাগিন ব্যাবহার করে ইমেজ আপলোড করার সময় ইমেজ কে অপ্টিমাইজড করে নেওয়া অর্থাৎ ইমেজ কে ছোট করে নেওয়া। 
  • বিভিন্ন ধরনের এডিটিং সফটওয়্যার দ্বারা আগে থেকেই ইমেজ অপ্টিমাইজড করাযেমনঃ এডোবি ফটোশপ, জাম্প ইত্যাদি। 

সঠিক প্লাগিন ব্যাবহার করাঃ

একটি ওয়েবসাইটে সঠিক মাত্রায় প্লাগিন ব্যাবহার করা গুরুত্বপূর্ণতাই বলে বেশি মাত্রায় প্লাগিন ব্যাবহার আপনার ওয়েবসাইট স্লো হওয়ার অন্যতম একটি কারণ হয়ে দাড়াতে পারেতাই কম, সঠিক প্লাগিন ব্যাবহার করুনপ্লাগিন ব্যাবহারে যদি আপনার ওয়েব সাইট স্লো হয়ে যায় তাহলে এর পরিবর্তে আপনি কোডিং এর মাধ্যমেও ওয়েবসাইট এর অনেক কাজ শেষ করতে পারেন

ক্যাসিং প্লাগিন সিডিএনঃ

ওয়েবসাইটের স্পিড দ্রুত করতে আপনি ক্যাসিং প্লাগিন সিডিএন ব্যাবহার করতে পারেনজনপ্রিয় টি ক্যাসিং প্লাগিন হলো WT Total Cache WP Super Cache. 

কন্টেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক অর্থাৎ সিডিএন আপনার সাইটের যাবতীয় কন্টেন্ট হোস্টিং সার্ভার থেকে নিয়ে দ্রুত ব্যাবহার কারীর নিকট পৌঁছে দেয়এতে ওয়েবসাইট টির মেইন সার্ভারে চাপ কমে এবং স্পিড ফাস্ট হয়জনপ্রিয় টি সিডিএন হলোঃ

  • Cloudflare
  • Incapsula

ডেটা অপ্টিমাইজড করাঃ

ওয়েবসাইট ফাস্ট করতে ডেটার অপ্টিমাইজেশন জরুরিঅহেতুক ডেটা জমে যাওয়ার কারণে কোয়েরি করতে সময় বেশি লেগে যায় এবং আপনার সাইট টি স্লো হয়ে যায়তাই WP optimize  ব্যাবহার করে আপনার ডাটাবেইজ কে অপ্রয়োজনীয় ডেটা থেকে মুক্ত রাখতে পারেন

এছাড়াও আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট এর স্পিড ঠিক রাখার জন্য থিম, প্লাগিন, ওয়ার্ডপ্রেস ভার্সন সব সময় আপডেট রাখুনওয়েবসাইট এর হোমপেইজ থেকে অতিরিক্ত কন্টেন্ট সরিয়ে ফেলুনউপরে উল্লেখিত টিপস গুলো অনুসরণ করে চললে আপনার ওয়েবসাইটটির স্পিড আগের থেকে বাড়বেএর ফলে আপনার ওয়েব সাইট টি গুগল ভালো র‍্যাংক করবে এবং ইউজার ফ্রেন্ডলি হবে

Facebook Comment