You are currently viewing ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট-এর নিরাপত্তার জন্য করনীয়

ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট-এর নিরাপত্তার জন্য করনীয়

আপনি কি আপনার স্টার্টআপ  ব্যবসার ওয়েবসাইটে CMS হিসাবে WordPress ব্যবহার করেন? তাহলে কি কখনো আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট এর নিরাপত্তার বিষয়টা নিয়ে একটু ভেবেছেন? কতটুকু নিরাপদ আপনার ব্যবসার প্রধান যোগাযোগের মাধ্যমটি?

আপনার ব্যবসার লোকাল নিরাপত্তার মতই ওয়েবসাইটের নিরাপত্তাও একইভাবে জরুরি। আজ আমরা জেনে নেব আপনার WordPress ওয়েবসাইট নিরাপত্তার জন্য করনীয় বিষয়গুলো কী কী?

হোস্টিংঃ Hosting Company In Bogra

যেকোন ওয়েবসাইট নিরাপত্তার প্রধান শর্ত হচ্ছে হোস্টিং সিকিউরিটি। তাই হোস্টিং কেনার সময় হোস্টিং প্রভাইডার কি কি সিকিউরিটি দিচ্ছে সেগুলো ভাল করে যাচাই করে নিন। জিনিস যেটা ভাল, দাম তার একটু বেশিই। তাই একটু টাকা খরচ করে ভাল মানের হোস্টিং নিন। টাকা বাচাতে গিয়ে সস্তা মানের হোস্টিং নিয়ে নিরাপত্তা ঝুকি কেন নিবেন? তাই সেলস পরবর্তী সার্ভিস, ২৪/৭ সেবা বিবেচনা করে হোস্টিং নিন। এক্ষেত্রে আমরা দেশীয় হোস্টিং কোম্পানিগুলো মধ্যে সেরা হিসাবে IT Nut Hosting-কে বিবেচনা করতে পারি।

ব্যাকআপঃ 

Regular WordPress Backup Service

ওয়েবসাইট এর নিয়মিত ব্যাকআপ রাখা হচ্ছে অন্যতম নিরাপত্তা বিষয়গুলোর একটি। অনেক সময় ওয়ার্ডপ্রেস, প্লাগিন বা থিমের নতুন আপডেটে সাইটের ডিজাইন ভেঙে যায় বা মেলওয়্যার এটার্কে সাইট ডাউন হয়ে যায়। কম সময়ের মধ্যে ডিজাইন ফিক্স করা বা মেলওয়্যার ক্লিন করা সম্ভব হয় না। ততক্ষন কি আপনার ওয়েবসাইট এমন ডাউন রাখবেন? আপনার কাস্টমাররা এসে ঘুরে যাবে আর দ্বিতীয় বার আসার আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে, এতে আপনার ব্যবসারই ক্ষতি। এরকম সময় একমাত্র ভরসা ব্যাকআপ। কয়েক মিনিটের মধ্যেই ব্যাকআপ রিস্টোর করে সাইট লাইভ করা যায়। তাই নিয়মিত সাইটের ব্যাকআপ রাখা বুদ্ধিমানের কাজ।

আপডেটেড রিসোর্সঃ 

ওয়ার্ডপ্রেস সব সময় তাদের ত্রুটি গুলো সমাধান করে নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করে  আপডেট রিলিজ করে। তাই সব সময় ওয়ার্ডপ্রেস আপটুডেট রাখা নিরাপদ। ওয়ার্ডপ্রেস এর পাশাপাশি থিম, প্লাগিনও আপডেট রাখতে হবে। কারন ওয়ার্ডপ্রেস, থিম/প্লাগিনের পুরাতন ভার্সন হ্যাকারদের অন্যতম হাতিয়ার।

অব্যবহৃত থিম-প্লাগিনঃ

ওয়েবসাইট সিকিউরিটির জন্য অন্যতম বাধা হচ্ছে অব্যবহৃত থিম-প্লাগিন। তাই কোন থিম বা প্লাগিন ব্যবহার না করলে সেটাকে রিমুভ করে ফেলুন।

WordPress Security Serviceকঠিন পাসওয়ার্ড প্যাটার্নঃ 

অনেকেই পাসওয়ার্ড মনে রাখার জন্য  সহজ পাসওয়ার্ড দিয়ে থাকে। এই ভুলটার জন্য আপনার সাইট হ্যাকারের আয়ত্তে চলে যেতে পারে। তাই সব সময় কঠিন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে। পাসওয়ার্ড নির্বাচনের সময় নিজের নাম, সাইটের নাম, জন্ম তারিখ, মোবাইল নাম্বার, ক্রমিক নাম্বার যেমনঃ 123456, 112233, 654321 এরকম কোন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করলে, আপনার পরিচিত কেউ বা হ্যাকারা এসব তথ্য জেনে আপনার সাইট এর এক্সেস নিতে পারে। কমপক্ষে ৮ সংখ্যার পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা অনেকটা নিরাপদ। পাসওয়ার্ডে নাম্বার, স্পেশাল ক্যারেক্টার, ক্যাপিটাল লেটার স্মল লেটার মিক্স করে ব্যবহার করা উত্তম। সবথেকে ভাল উপায় হচ্ছে জেনারেটেড পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা। কারন এই পাসওয়ার্ড আপনার নিজেরই মনে থাকবে না। পাসওয়ার্ড ম্যানেজ করার জন্য অনেক ফ্রী টুলস আছে যেমন, LastPass। এই রকম আরো অনেক টুলস আছে যেগুলা ব্যবহার করে অনেক সহজেই আপনার সব ধরনের পাসওয়ার্ড ম্যানেজ করতে পারেন।

ফ্রী বা ক্র্যাক থিম/প্লাগিনঃ 

ফ্রী বা ক্র্যাক কোন থিম বা প্লাগিন ব্যবহার করা আর খাল কেটে কুমির আনা সমান ব্যাপার। কারন এসব থিম প্লাগিনে হ্যাকিং/ট্রাকিং বা মেলওয়ার কোড থাকতে পারে। ফ্রী থিম/প্লাগিন শুধুমাত্র ওয়ার্ডপ্রেসের নিজস্ব স্টোর থেকে ব্যবহার করা নিরাপদ। আর প্রিমিয়াম থিম/প্লাগিনের জন্য ট্রাস্টেড কোম্পানির ব্যবহার করা উত্তম।

Best WordPress security Service

ক্যাপচাঃ 

যেকোন ফর্ম, কমেন্ট, লগইনে ক্যাপচা ব্যবহার করাও সিকিউরিটির মধ্যে অন্যতম। কারন, যেকোন ফর্মই হল হ্যাকারদের প্রথম রাস্তা। আর এই রাস্তা বন্ধ করার একমাত্র উপায় হল ক্যাপচা। ক্যাপচা ব্যবহার না করলে আপনার শত্রু বা হ্যাকার কোন স্ক্রিপ্ট বা বটের মাধ্যমে আপনার সাইটে কয়েক মিনিটের মধ্যে হাজার হাজার কমেন্ট করে আপনার সাইট ডাউন করে দিতে পারে।

সিকিউরিটি প্লাগিনঃ 

উপরের পদক্ষেপ ও সতর্ক্তাগুলোই যে সিকিউরিটির শেষ, তা নয়। ব্যাকেন্ডের আরও অনেক সিকিউরিটি ব্যাপার আছে। এগুলার জন্য অনেক ফ্রী সিকিউরিটি প্লাগিন আছে। প্লাগিন গুলাতে অনেক ফিচার প্যাকেজ আকারে থাকে মানে অল ইন ওয়ান সলুশন। যেমনঃ Limit login attempt, ip block, bruteforce attack prevent, ফাইল ইডিটিং পারমিশন, ফাইল এক্সিকিউট পারমিশন, স্ক্রিপ্ট আপলোড, লগইন ইউআরএল পরিবর্তন সহ আরো অনেক ফিচার। 

পরিশেষেঃ

যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইট সার্ভিস নিতে আজই yappobd  এর সাথে যোগাযোগ করুন। সেবা নিন, ব্যবসাকে প্রশারিত করুন। সারাদিনে আপনার ব্যবসা পরিচলনার পর এসব নিয়ে ভাবা বা কাজ করার জন্য নিশ্চয় আপনার সময় থাকে না। কাস্টমার ম্যানেজের সাথে এসব পরিচালনা করতে হিমশিম খাচ্ছেন? দক্ষ টেক-পার্টনার খুজছেন? আপনার সাইটের এই সব দায়িত্ব YappoBD কে দিয়ে নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারেন। আমাদের রয়েছে দক্ষ ডেভেলপার  টিম। ওয়েবসাইট ডিজাইন, রিডিজাইন, ওয়েবসাইট মেইনটেনেন্স, ডিজিটাল মার্কেটিং সহ সব ধরনের সেবা পেতে এখনি যোগাযোগ করুন YappoBD তে।

Facebook Comment