You are currently viewing ফেসবুক পিক্সেল কি এবং কিভাবে কাজ করে 

ফেসবুক পিক্সেল কি এবং কিভাবে কাজ করে 

আপনি কি ফেসবুক বুস্ট করেও আগের মতো আর সেল পাচ্ছেন না? ফেসবুক পিক্সেল থাকতে চিন্তার কোন কারণ নেই। ফেসবুকে বিজ্ঞাপন বুস্ট করেই আমরা চুপ করে থাকি। কিন্তু এতে যে সফলতা আসে তার থেকেও আরও বহুগুণ সফলতা বাড়িয়ে দেয় ফেসবুক পিক্সেল এর  ব্যবহার। কারণ ফেসবুক পিক্সেলের মাধ্যমে আমরা ফেসবুকের ক্যাম্পেইন গুলো কে আরও বেশি কার্যকর করতে পারি। চলুন তাহলে ফেসবুক পিক্সেল কি এবং এটি কিভাবে কাজ করে তা পড়ে আসা যাক। 

ফেসবুক পিক্সেল কিঃ 

ফেসবুক পিক্সেল হলো  একটি টুলস। এটি ব্যবহার করে আপনি আপনার ওয়েবসাইট এ ভিজিটররা কি করছে তা ট্র‍্যাক করে একটি এনালাইটিক্স রিপোর্ট জেনারেট করতে পারবেন। আপনার গুগল এনালাইটিক্স সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা থাকলে ফেসবুক পিক্সেল খুব সহজেই বুঝতে পারবেন। গুগল এনালাইটিক্স একটি ফ্রি টুলস যা দিয়ে আপনি জানতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইট এ কতজন ভিজিটর ভিজিট করেছে, তারা কোন এরিয়া তে থাকে এবং তাদের বয়স কত। কিন্তু কেবল এইটুকু তথ্য দ্বারা বিজনেসটা কে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়া অনেক কষ্টসাধ্য ব্যাপার। কিন্তু ফেসবুক পিক্সেল এর মাধ্যমে আমরা অনেক বিস্তারিত ধারণা পেয়ে থাকি।

আপনার ওয়েবসাইট এ কতজন ভিজিটর ভিজিট করতে আসছে, তারা ওয়েবসাইট এ ঢুকে কি প্রোডাক্ট দেখছে, তারা কি কি প্রোডাক্ট ক্র‍য় করছে, তাদের বয়স অনুযায়ী চাহিদা কেমন, তাদের কোন প্রোডাক্টটির প্রতি চাহিদা বেশি এই সমস্ত বিষয় রিপোর্ট এনালাইটিক্স আকারে ফেসবুক পিক্সেল আপনার কাছে উপস্থাপন করবে। আপনি হয়তো জানেন, বড় ধরনের মার্কেটারদের বিজ্ঞাপনে সফলতা পাওয়ার অন্যতম গোপন রহস্য হলো এই ফেসবুক পিক্সেল। আপনি যদি ব্যবসায়ী হয়ে থাকেন, এটি ব্যবহার এর ফলে আপনার ব্যবসা আরও লাভজনক হবে। আপনি ফেসবুকে বিজ্ঞাপন বুস্ট করে পিক্সেলের মাধ্যমে এর সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করতে পারবেন। আপনি হয়তো শুনে থাকবেন অনলাইন জগতে Data driven এর বিকল্প নেই কিন্তু এর একটি অন্যতম হাতিয়ার হলো ফেসবুক পিক্সেল। কিন্তু ফেসবুকের এই চমৎকার আপডেট টা সম্পর্কে এখানো অনেকেই জানে না।

পিক্সেলের সংগৃহীত তথ্যের প্রয়োজনীয়তাঃ 

আপনি এডভারটাইজিং এক্সপার্ট হোন অথবা বিজনেস ম্যান হোন না কেনো আপনার কাছে ওয়েবসাইট এর বিস্তারিত তথ্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। ধরুন আপনার একটি বুটিক শপ রয়েছে এবং আপনি চাচ্ছেন ফেসবুকের মাধ্যমে তার প্রশারতা বাড়ুক। তাই আপনি আপনার বিজনেস এর বিজ্ঞাপন দিয়ে যাচ্চেন, এতে আপনার বিক্রয় ও হচ্ছে ভালোই কিন্তু বছর শেষে আপনি যখন হিসেবের খাতা টা বের করলেন তখন দেখলেন আপনার যা লাভ হচ্ছে প্রায় সেরকম একটা অ্যামাউন্টের টাকা আপনার বিজ্ঞাপন দিতে চলে যাচ্ছে। ফলাফলঃ ব্যবসায় লাল বাতি। এখন আপনি মাথায় হাত দিয়ে ভাবতে পারেন, ” তাহলে আমার এক্ষেত্রে করণীয় কি”? হ্যাঁ, চিন্তার কিছু নেই। ফেসবুক পিক্সেল হতে পারে আপনার সমস্যার সমাধান। এর মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন, আপনার বিজ্ঞাপন কে কে দেখছে। ধরুন আপনি জানতে পারলে আপনার বুটিক শপের বিজ্ঞাপন ৩৫+ বছরের বড় কেও দেখছে না। কিংবা তাদের সামনে আপনার শপের বিজ্ঞাপন আসলেও তারা প্রোডাক্ট ক্রয় করছে না। আপনার শপ থেকে ১৬-৩৫ বছরের মহিলারা বেশি ক্রয় করছে। তাহলে আপনার টার্গেটেড কাস্টমার হলো ১৬-৩৫ বছরের মহিলারা। এটা আপনি ফেসবুক পিক্সেল এর মাধ্যমে জানতে পারলেন। এখন আপনি ৩৫ বছরের ঊর্ধ্বে যেসব মহিলাদের বয়স তাদের কাছে আপনার বিজনেসের বিজ্ঞাপন দেওয়ার প্রয়োজন নেই। এখানে আপনার খরচ বেঁচে গেলো এটির মাধ্যমে। সেই টাকা দিয়ে আপনি ১৬-৩৫ বছরের মহিলাদের কাছে আপনার বিজনেস এর বিজ্ঞাপন পৌঁছে দিতে পারবেন। এবং আপনার বিজনেস এর সেল জেনারেট ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাবে। 

আবার আপনি এই টুলস টির মাধ্যমে দেখলেন যে, যেসব মহিলারা আপনার প্রোডাক্ট ক্রয় করছে তারা বৃহঃপতি-শুক্রবারে দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত  এই সময়টাতে বেশি আপনার বিজ্ঞাপন দেখছে এবং ক্রয় করছে। তাহলে আপনি বাকি দিনে বিজ্ঞাপন দেওয়া কমিয়ে দিলেন এবং এই ২ দিনে বেশি বিজ্ঞাপন দিয়ে সবার নজর কেড়ে নিলেন। এক্ষেত্রে আপনার খরচ ও কমলো এবং আপনার বিক্রয় ও বাড়লো। খরচ কমাতে তাই ফেসবুক পিক্সেল এর অতি সুক্ষ্ম সংগৃহীত তথ্যের প্রয়োজনীয়তা অনেক। 

ফেসবুক অ্যাডভারটাইজিং সার্ভিস

ফেসবুক পিক্সেল কি কি কাজ করেঃ 

এতক্ষণে এর কাজ কি তা হয়তো একটু হলেও জানতে পেরেছেন। এবার বিস্তারিত আলোচনা করা যাক। 

  • ফেসবুক পিক্সেলের মাধ্যমে ফেসবুকে দেওয়া বিজ্ঞাপন ক্যাম্পেইনগুলো কে আরও বেশি কার্যকর করা যায়।
  • এর মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন আপনার বুটিক শপ থেকে কারা বেশি ক্রয় করছে, এবং কোন সময়ে ক্রয় করছে। 
  • আপনি জানতে পারবেন আপনার বিজ্ঞাপন টি কয়জনের কাছে পৌঁছে ছিল এবং তাদের ভেতর কয় জন আপনার প্রোডাক্ট টি ক্রয় করেছে। 
  • আপনি এটাও জানতে পারবেন আপনার বিজ্ঞাপনগুলো ছেলে নাকি মেয়েরা বেশি দেখছে। 
  • এই সমস্ত তথ্য জানার ফলে আপনি আপনার টার্গেটেড কাস্টমার নির্ধারণ করতে পারবেন অতি সহজেই। এবং শুধুমাত্র আপনার টার্গেটেড কাস্টমার এর কাছে বিজ্ঞাপন পৌঁছানোর মাধ্যমে আপনার খরচ বেঁচে যাবে। 
  • এই ক্যাম্পেইন হতে যে তথ্যগুলো আপনি পাবেন তা পরবর্তীতে ও কাজে লাগাতে পারবেন। 

এটির আরও অনেক কাজ রয়েছে। এই সমস্ত তথ্য বিশ্লেষণের মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যবসাকে স্মার্টলি বড় করতে পারবেন। আপনার আগের চেয়ে খরচ কমবে এবং বিক্রয় অনেক বেড়ে যাবে। 

ফেসবুক পিক্সেল কিভাবে কাজ করেঃ 

আপনার ফেসবুক পিক্সেল সম্পর্কে হালকা ধারণা থাকলে হয়তো জেনে থাকবেন যে, একটি পিক্সেল অন্য আরেকটি পিক্সেল থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। প্রতিটি পিক্সেল এর ইউনিক আইডি নাম্বার দেওয়া থাকে যাতে একটির সাথে অপরটির তথ্যের সংমিশ্রণ না ঘটে। চলুন ফেসবুক পিক্সেল কিভাবে ব্যবহার করতে হয় দেখে আসি।

ফেসবুক পিক্সেল  ক্রিয়েট করার জন্য প্রথমেই আপনাকে আপনার ফেসবুক বিজনেস ম্যানেজার এ লগ ইন করতে হবে। উপরে ডান দিকে যে মেন্যু বাটন টা রয়েছে তাতে ক্লিক করুন এবং পিক্সেল লেখাটি তে ক্লিক করুন ড্রপ-ডাউন মেন্যু থেকে। এখন যে উইন্ডো টি ওপেন হয়ে গেলো তা থেকে আপনি পিক্সেল ক্রিয়েট করতে পারবেন। 

পিক্সেল ক্রিয়েট করার সময় আপনি একটা ইউনিক নাম ব্যবহার করুন। এর ফলে খুব সহজেই আপনি সেটা খুঁজে বের করতে পারবেন। এরপর আপনি আপনার ওয়েবসাইট এর URL দিবেন। এরপর ক্রিয়েট লেখা অপশনে ক্লিক করুন, আপনার পিক্সেল টি তৈরি হয়ে গেলো। এখন ফেসবুক আপনাকে একটি কোড দিবে। যা ওয়েবসাইটে ব্যবহার এর মাধ্যমে আপনি পিক্সেলের সুবিধা টা নিতে পারবেন।

এই কোডটি আপনি তিন ভাবে আপনার ওয়েবসাইটে বসাতে পারেন।

  • কোডটি আপনি নিজেই আপনার ওয়েবসাইটে ব্যবহার করতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে আপনাকে অনেক পরিশ্রম করতে হবে। 
  • আপনি একজন ওয়েব ডেভেলপার এর সাহায্য নিয়ে কোডটি আপনার ওয়েবসাইট এ বসাতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি www.yappobd.com ওয়েবসাইট থেকে ওয়েব ডেভেলপার হায়ার করতে পারেন। পিক্সেল কোডটি বসানোর সমস্ত দায়িত্ব তারা নিবে। আপনার কোন পরিশ্রম করতে হবে না।
  • এছাড়াও আপনি কোডটি বসানোর জন্য গুগল ট্যাগ বারে আপনার ফেসবুক পেইজ টি সংযুক্ত করে কাজ টি করতে পারবেন।

পরিশেষেঃ 

বিক্রয় বাড়াতে ফেইসবুক এডভারটাইজিং এবং এর সাথে ফেসবুক পিক্সেল এর ব্যবহার অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এটি আপনার বিজনেস এর খরচ কমিয়ে টার্গেটেড কাস্টমার চিহ্নিত করবে এবং বিক্রয় বাড়াবে। তাই আপনার বিজনেসের যদি কোনো এডভারটাইজিং রিলেটেড সার্ভিসের প্রয়োজন হয় তাহলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। ভালো মানের সেবা নিন, বিজনেসের বিক্রয় বাড়ান।

Facebook Comment